July 10, 2020, 8:30 pm

নোটিশ
সাইটের মান উন্নয়নের কাজ চলছে। কিছুটা সময় দিয়ে সহযোগীতা করবেন। ধন্যবাদ
শিরোনাম
ঘাটাইলের এমপি আতাউর রহমান খান অসুস্থ, হেলিকপ্টারে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে লহ্মিন্দর ও সাগরদিঘী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ঘাটাইলে জমি নিয়ে বিরোধে বাড়ীঘরে হামলা, লুটপাট, নিহত ১ (ভিডিওসহ) ঘাটাইলে গুডনেইবারস বাংলাদেশ সিডিপির উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ঘাটাইলের গারোবাজারে পুলিশ ফাঁড়ির দাবীতে ব্যবসায়ী এবং এলাকাবাসীর মানববন্ধন ঘাটাইলে বিদ্যুৎ অফিসের কেউ মুখ খুলছে না; তবে কার ভুলে প্রাণ গেল হায়দারের? ঘাটাইলে রসুলপুর ইউনিয়ন মতিউর রহমান স্মৃতি সংসদের কমিটি গঠন ঘাটাইলে ২৬ গ্রাম পুলিশ পেলো বাইসাইকেল বাংলাদেশ অনলাইন বঙ্গবন্ধু এক্য পরিষদ দিঘলকান্দি ইউনিয়ন শাখা কমিটির অনুমোদন ঘাটাইলের সংগ্রামপুরে অর্থাভাবে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর সাথে সংগ্রাম করছে বৃদ্ধ নুরু মিয়া

পাগলীর সন্তান প্রসব নিয়ে ইউএনও’র আবেগঘন স্ট্যাটাস

পাগলীর সন্তান প্রসব নিয়ে ইউএনও’র আবেগঘন স্ট্যাটাস

ঘাটাইলে শিশু আব্দুল্লাহকে জন্ম দিয়ে পাগলী হলো মা; তবে বাবা হয়নি কেউ। মানসিক বিকারগ্রস্থ পঁচিশোর্ধ যুবতী মা হলেন ঠিকই। সন্তানের বাবা কে? কোথা থেকে আসলো এ পাগলী? এ প্রশ্ন এখন ঘোরপাক খাচ্ছে ঘাটাইলের সংগ্রামপুর ইউনিয়নের বোয়ালীহাটবাড়ি এলাকায়। তবে পরিচয়হীন এ অসহায় পাগলীর প্রসব কালে স্থানীয়রা মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

সংবাদ পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যান ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার অঞ্জন কুমার সরকার। এ বিষয়ে বিস্তারিত ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুনঃ

ফিরে এসে তিনি তার ফেসবুক টাইম লাইনে একটি স্ট্যাটাস দেন পাঠকদের জন্য তা হুবুহু তুলে ধরা হলো:

নির্মম বাস্তবতায় এক ফুটফুটে মানব শিশু জন্ম হওয়ার গল্প……
গত ১৩/০৬/২০২০ তারিখ দিবাগত রাতে এক পাগলীর প্রসব বেদনার গগনবিদারী চিৎকারে ঘুম ভেঙেছিল ঘাটাইল উপজেলার সংগ্রামপুর ইউনিয়নের বোয়ালীহাটবাড়ী বাজার এলাকার পাহাড়ি জনপদের মানুষের। পাগলীর প্রসব বেদনার চিৎকারে প্রথম এগিয়ে আসে বোয়ালীহাটবাড়ী বাজার এলাকার ষাটোর্ধ এক নৈশ্যপহরী আব্দুল্লাহ। উনি প্রসব বেদনায় কাতর পাগলীকে পাশ্ববর্তী বোয়ালীহাটবাড়ী বাজার সংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত ভবনের বারান্দায় বসিয়ে ছুটে যান গ্রাম্য দাই বা কোন সহায়তাকারী সাহসী নারীর খুঁজে। খোজাখুজি পর সন্ধান পান একই গ্রামের শাহজাহানের স্ত্রী সাজেদা বেগমের। উনাকে বলার সাথে সাথেই শত ভয়ভীতি ও বাধা উপেক্ষা করে নৈশ্য প্রহরীর সাথেই রওয়ানা হন পঞ্চাশোর্ধ সাজেদা বেগম। সাজেদা বেগমেকে পেয়ে পাগলীর মনোবল ও শক্তি ফিরে পায় এবং সাজেদা বেগমের হাতেই জন্ম হয় এক ফুটফুটে পুত্র সন্তানের। মা ও নবজাতক উভয়ই সুস্থ আছে।


আজ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে নব জাতকের জন্য কিছু প্রসাধনী সামগ্রী, পেষাক, শিশুখাদ্য এবং সন্তানের মায়ের জন্য ফলমূল ও শাড়ি কাপড় সহ এক রাশ শুভাশিষ ও ভালোবাসা পৌছে দিলাম। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মহোদয়ের সহায়তায় নবজাতকে ভিটামিন-এ ক্যাপসুল এবং প্রসব পরবর্তী চিকিৎসা ও ঔষধ নিশ্চিত করা হলো। সাজেদা বেগমের আগ্রহের প্রেক্ষিতে নবজাতক ও তাঁর মা কে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার ও এলাকাবাসীর উপস্থিতিতে মাজেদা বেগমের হেফাজতে রাখা হলো।


আব্দুল্লাহ ও সাজেদা বেগমের মতো মানবতার সেবায় এগিয়ে আসা নিঃস্বার্থ মানুষদের জন্য আমরা গর্বিত।


আমি আসলে বুঝতে পারছি না, আব্দুল্লাহ বা মাজেদা বেগমের মত নিঃস্বার্থবান সাহায্যকারীদের বীরত্বের কথা ভেবে গর্ববোধ করব, নাকি পাগলিটাকে মা বানিয়ে দেয়া নর পিশাচটার কথা ভেবে লজ্জিত হব।
যে নরপিশাচ পাগলীটাকে মা বানিয়ে নিজে আত্নগোপনে আছে তার জন্য ধিক্কার জানাই! ছিঃ ছিঃ মানুষরুপী জানুয়ারদের জন্য….. ওরা সমাজের কীট, মানুষের অবয়বধারী পশু….!!!
নবজাতক ও তাঁর মায়ের জন্য আশীর্বাদ ও সুস্বাস্থ্য কামনা করছি।

শোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন




Developed By Justin Shirajul Islam
Design & Developed BY Mgic TV