1. ashikghatail18@gmail.com : ghatailmedia :
সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৭:৪৪ পূর্বাহ্ন

মানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন বাকেরগঞ্জের এসিল্যান্ড তরিকুল ইসলাম।

ঘাটাইল মিডিয়া ডেস্ক
  • বাংলাদেশ সময় শনিবার, ৪ জুলাই, ২০২০
  • ৮৯৪ বার ভিউ করা হয়েছে

বার্তা সম্পাদক জি এম রিয়াদ ঃ
বাকেরগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ তরিকুল ইসলাম উজ্জল দ্রুত সময়ের মধ্যে এ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস প্রদান করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। তিনি সততা ও নিষ্ঠার সাথে অর্পিত দায়িত্ব পালন করে চলছেন। ইতিমধ্যে তিনি উপজেলাবাসীর কাছে জনবান্ধর কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত লাভ করেছেন। উন্নয়নমুখী নানা কর্মকান্ডে গতিশীলতার এ প্রচেষ্টা অব্যহত থাকার দাবি জানিয়েছেন উপজেলার সাধারন মানুষ। সেবার ব্রত নিয়ে তিনি ভূমি উন্নয়ন সংক্রান্ত ব্যপারে সঠিক ভাবে নিয়ম অনুযায়ী নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এতে উপজেলা ভূমি অফিসমুখি সাধারণ মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

বাকেরগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে যোগদানের পর উপজেলার ভু‌মি অফিস থেকে অনিয়ম-দূর্নীতি প্রতিরোধ করে মডেল ভূ‌মি অ‌ফিসে রুপান্তরিত করতে নিরলস ভাবে কাজ করে করেছেন তি‌নি। উপজেলার ভু‌মি অফিসে উপ‌জেলা সহকারী ক‌মিশনার (ভূ‌মি) তরিকুল ইসলাম যোগদানের পর উপ‌জেলার ও ইউনিয়ন ভূ‌মি অফিসের দৃশ্যপট পাল্টে গেছে,গতিশীল হয়েছে কাজ,দূর হয়েছে ভূ‌মির মা‌লিক‌দের হয়রানি ও ভোগান্তি।

ভূমি সংক্রান্ত পদ্ধতি সহজ করার জন্য নানাবিধ দিক ভেবে সেবা প্রার্থীদের সরাসরি তিনি তার সঙ্গে দেখা করার আহ্বান জানান। তিনি যোগদানের সঙ্গে সঙ্গে ভূমি সেবার নানা পরিবর্তন আনা হয়েছে। বাকেরগঞ্জ উপ‌জেলা সহকারী ক‌মিশনার (ভূ‌মি) তরিকুল ইসলাম ৩৪ তম বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের একজন সদস্য‌।

তিনি এখানে যোগদানের পরে তার নিজেস্ব প্রচেষ্টায় ঢেলে সাজিয়েছেন উপজেলা ভূমি অফিস ও ভূমি সেবা। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, নামজারী ও জমা খারিজের আবেদন গ্রহণের সাথে সাথে আবেদনকারীকে কেস নম্বর উল্লেখপূর্বক একটি রশিদ দেওয়া। রশিদের মধ্যে উল্লেখ্য থাকে শুনানি তারিখ কবে এবং হেলডেস্ক মোবাইল নম্বর। প্রতিটি আবেদন গ্রহনের সাথে সাথে একটি সুদৃশ্য ফাইল কভার সংযোজন করা। প্রতিটি কেইস শুনানী হবে কবে? সে তারিখ গুলো নোটিশ বোর্ডে টাঙ্গানো। কার্যালয় সুত্র জানায়,এসিল্যান্ড তরিকুল ইসলাম যোগদানের আগে সেবাপ্রার্থীদের এক টেবিল থেকে আরেক টেবিলে ঘুরতে হতো, কর্মচারীদেরও হাতের কাজের ক্ষতি হতো। কিন্তু তিনি আসার পর থেকে তারা সরাসরি সহকারী কমিশনারের কাছে গিয়ে পরামর্শ চাইলে,তাৎক্ষণিক পরামর্শ দিয়েছেন অথবা নির্দিষ্ট কর্মচারীকে ডেকে কাজ বুঝিয়ে দিয়েছেন। এতে কাজের গতিও বেড়ে যেতো । চালু করেছেন ডিজিটাল হাজিরা পদ্ধতি।

সেবা গ্রহিতা এক ব্যক্তি জানান, দক্ষ মেধা পরিপূর্ণ এ ধরনের কর্মকর্তা থাকলে বাকেরগঞ্জ উপজেলায় অল্প দিনেই নানা কর্মকান্ডে গতিশীলতা আসবে। অন্যদিকে অনিয়ম, দুর্ভোগ, দুর্দশা দুর হবে। তিনি আরো বলেন, তরিকুল ইসলাম স্যার উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করে অল্প দিনের মধ্যে উপজেলাবাসীর কাছে ব্যপক প্রশংসা অর্জন করেছেন। ভবিষ্যৎতে এসিল্যান্ড স্যারের এ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকুক এটাই কামনা করেছেন উপজেলাবাসী।

ভূমি অফিসের নাজির বলেন,বর্তমান এসিল্যান্ড স্যার যোগদানের পর তাঁর আন্তরিক প্রচেষ্টায় অফিসের নিরাপত্তা ও সৌন্দর্য অনেক বেড়েছে।

একজন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটের এমন দায়িত্বপূর্ণ আচরণ মনোভাব ও মহানুভতা দেখে বাকেরগঞ্জবাসী খুশিতে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, জনসেবার জন্য প্রশাসন। এই মনোভাব বাংলাদেশের সকল স্তরের সরকারি কর্মকর্তাদের মাঝে বিদ্যমান থাকলে বাংলাদেশ আরো এগিয়ে যাবে এবং কাঙ্খিত লক্ষ্য পৌঁছাতে অনেকটাই সহজতর হবে। সহকারী কমিশনার (ভূমি) তরিকুল ইসলাম এই অনন্য দৃষ্টান্তের মহানুবতা একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে এই বাকেরগঞ্জ উপজেলায়

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2021 Ghatailmedia
Develper By Justin Shirajul